আর্টোকারপাস হচ্ছে তুঁত পরিবারের বৃক্ষের একটি গণের নাম

গণের বৈজ্ঞানিক নাম: Artocarpus J.R. and G. Forst.

বাংলা নাম: নেই,

Artocarpus lacucha, ডেওয়া ফলের ভেতর বাহির

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস

জগৎ/রাজ্য: Plantae – Plants

উপরাজ্য: Angiosperms

বিভাগ: Eudicots

শ্রেণী: Rosids

বর্গ: Rosales

পরিবার: Moraceae

গণ: Artocarpus J.R. and G. Forst., Char. Gen. Pl.: 101 (1776).

বর্ণনা: আর্টোকারপাস হচ্ছে তুঁত বা মোরাসি পরিবারের মাঝারি থেকে বৃহদাকার, চিরহরিৎ অথবা অর্ধপত্রঝরা বৃক্ষ। এদের দুগ্ধবৎ তরুক্ষীর বর্তমান। পাতা সরল, একান্তর, সবৃন্তক, ফলক অখন্ড বা পক্ষবৎ খন্ডিত, কদাচিৎ পক্ষল যৌগিক, উপপত্র পার্শ্বীয়, কান্ডবেষ্টক, পাতী। পুষ্প একলিঙ্গী, পুষ্পমঞ্জরীতে সজ্জিত, পুং এবং স্ত্রী পুষ্প একই উদ্ভিদে বর্তমান। পুং পুষ্পমঞ্জরী অপ্রকৃত দোলক মঞ্জরী, মঞ্জরীদন্ডক। পুং পুষ্পের বৃত্যংশ ২-৪টি, খন্ডিত বা বিভক্ত, পুংকেশর একক। স্ত্রী পুষ্পমঞ্জরী কান্ডের গাত্রে, মঞ্জরীদন্ডক, কন্টকিত, আঁচিলযুক্ত বা চিত্রবিচিত্রিত। স্ত্রী পুষ্পের বৃত্যংশ ৩-৪টি, নলাকার, ফলের সাথে প্রলম্বিত, গর্ভাশয় কেন্দ্রীয় অথবা পার্শ্বীয় গর্ভদন্ডবিশিষ্ট। ফল সরস সিনকার্প।

বাংলাদেশ এই গণে মোট তিনটি প্রজাতি পাওয়া যায় এবং সেগুলো হচ্ছে কাঁঠাল, চামফল এবং ডেউয়া

তথ্যসূত্র:

১. এম এ হাসান, (আগস্ট ২০০৯)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস”।  আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ ৯ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১৯৭। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

Leave a Comment

error: Content is protected !!