আর্য

দুর্ভিক্ষ, বন্যার চক্রে যথাপূর্ব চলি।

কপর্দকহীন প্রাণধারণের থলি।

মন্ত্রদুগ্ধ পতনের দুঃস্বপ্ন দেখায়।

পাণ্ডববর্জিত দেশ যদ্যপি আমার

তবু বুঝি, কালের জাহাজ

বাণিজ্যবায়ুর হাতে শুধুমাত্র ক্রীড়নক আজ।

 

সরল বিশ্বাসে যাই সপ্তাহান্তে হাটে

খাদ্যের দ্বিগুণ দাম দোকানীরা হাঁকে।

রাজায় রাজায় যুদ্ধ;

ফিরি শূন্য হাতে।

 

গুরুগিরি বংশগত পেশা—

নতুন শিষ্যের টিকি মেলেনাকো, পুরাতন চেলা

শতহস্ত দূরে রাখে। আফিমের নেশা

পিণ্ড পায় নাকো আজ।

কুলীন ব্রাহ্মণ আমি ; ওস্তাদ ঘটক—

পশ্চিম দিগন্তে ধরি অষ্টমীর পাণি।

সম্বরণ করাে আজ, হে ঈশ্বর, করুণা তােমার।

 

ভিড়গ্রস্ত তরণীতে ভারগ্রস্ত আমি

সংসারসমুদ্রে হালে পাইনাকো পানি।

তাই এই কৃষ্ণপক্ষে উপবাসী প্রার্থনা জানাই,

আমাকে সৈনিক করো তােমাদের কুরুক্ষেত্রে, ভাই।

আরো পড়ুন:  সকলের গান

Leave a Comment

error: Content is protected !!