রাজশাহীতে বিবিসিএফের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

বাংলাদেশ জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ফেডারেশন (বিবিসিএফ) এর তৃতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী গত বুধবার ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ তারিখে রাজশাহীতে উদযাপিত হয়েছে। সেইদন সকাল সাড়ে ৯ টায় শহরের সিএন্ডবি মোড় থেকে র‌্যালি বের হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‍্যালি শেষে নাংকিং হোটেলে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় সংগীত এবং কেক কাটার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন করেন কেন্দ্রীয় বন সংরক্ষক ও প্রধান অতিথি জাহিদুল কবির।

রাজশাহীতে বিবিসিএফের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানটিতে এবারের প্রতিপাদ্য ছিলো ‘ক্ষুদ্র ও বৃহৎ জীব থেকে প্রাপ্ত সেবায় নিরাপদ হোক আগামীর বিশ্ব’। বিবিসিএফ এর পরিচালক এস এম ইকবালের সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় উক্ত সভায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, বিবিসিএফ-এর সহ-সভাপতি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেনারী ক্লিনিক ও কৃত্তিম প্রজনন কেন্দ্রের ইনচার্জ ড. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ।

এছাড়াও রাজশাহীতে বিবিসিএফের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে সংগঠনের সফলতার বেশ কিছু দিক তুলে ধরে প্রতিবেদন প্রকাশ করেন সংগঠনের সম্পাদক মো: মাসুম মিয়া। অন্যদিকে কি-নোট উপস্থাপনের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও বৃহৎ প্রানির বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর বিধান চন্দ্র দাস। সংগঠনটির ১০৫ টি অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা তাদের কর্মকান্ডের সম্ভাবনা ও সমস্যার অজস্র দিক আলোকপাত করেন। পরে দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে “প্রকৃতিজ” নামক একটি স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন শেষে জীববৈচিত্র্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য সেরা কয়েকজনকে ক্রেস্ট ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাহিদুল কবির বলেন, জীববৈচিত্র্য আমাদের জীবনের অংশ, সুতরাং একে রক্ষার দায়িত্ব আমাদেরকেই নিতে হবে। কিন্তু জনসংখ্যা বৃদ্ধি, অপরিকল্পিত নগরায়ন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবসহ মানুষের বহুমুখী অসচেতনতায় আজ জীববৈচিত্র্য হুমকির সম্মুখীন। মানুষের অপরিকল্পিত আবাসস্থলের কারণে আজ বহু প্রাণি এবং উদ্ভিদ বিলুপ্ত হতে চলেছে এবং অনেক প্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তাই প্রাকৃতিক ভারসাম্য বজায় রেখে আমাদেরকে হরেক রকমের জীব বাঁচিয়ে রাখতে হবে।

আরো পড়ুন:  নেত্রকোনায় অন্তরাশ্রম আয়োজিত কবিতা সন্ধ্যা ও কবিতা বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত

স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা জীববৈচিত্র্য রক্ষার কাজ চালিয়ে যান, সরকার আপনাদের পাশে আছে। ইতিমধ্যে সরকারের বন বিভাগ ১৮ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে এবং বিশ্বব্যাংক এক্ষেত্রে ২৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। এছাড়াও বন্য প্রাণি রক্ষার্থে বিভিন্ন সহযোগিতার আশ্বাসও দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মিরপুর বোটানিক্যাল গার্ডেনের পরিচালক ও বিবিসিএফ-এর উপদেষ্টা মোল্যা রেজাউল করিম, রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকতা এস এম সাজ্জাদ হোসেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেনারী এন্ড এনিমেল সাইন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মো: জালাল উদ্দিন সরদার, রাজশাহী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন ভূইয়া, বগুড়া জেলার বন সংরক্ষক মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল সরদার প্রমুখ। পরে সংগঠনটির চতুর্থ বর্ষের কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

Leave a Comment

error: Content is protected !!