মুসা ইব্রাহীম নামক ধাপ্পাবাজের বহুমুখী ভণ্ডামো ও জনপ্রিয় ধাপ্পাবাজি

musa ibrahim

মতিকণ্ঠ আর আমিষুল লামার কল্যাণে প্রথমে মনে হয়েছিল মুসা ইব্রাহীম (জন্ম: ১৯৭৯) রবীন্দ্রনাথের চেয়েও বড় ও মহান। কিন্তু দিন যাইতে থাকিল আর মশার বুজরুকি ধরা পড়তে থাকিল। আমরা যারা কোনোদিন পাহাড় দেখি নাই তাদেরকে ঘোলা ছবি দেখাইয়া ঘোলা পানিতে মুসা প্রচুর মাছ শিকার করিলেন। আরো পড়ুন

তিরনই নদী বাংলাদেশের পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলার একটি নদী

তীরোই নদী

তিরনই নদী বা তীরোই নদী বা তীরনই নদী (পঞ্চগড়) (ইংরেজি: Tirnai River) হচ্ছে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ৪ কিলোমিটার, প্রস্থ ১৫ মিটার এবং প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। আরো পড়ুন

ভাটা নদী বাংলাদেশের পঞ্চগড় এবং উত্তর দিনাজপুর জেলার একটি নদী

ভাটা নদী

ভাটা নদী (ইংরেজি: Vata River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলা এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানা সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের একটি নদী।[১] নদীটির দৈর্ঘ্য ১৫ কিলোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। ভাটা নদী বেরং নদীর উপনদী যা বেরং নদীর ডান তীরে এসে মিলিত হয়েছে। এই নদীর পানির প্রবাহ … Read more

কাছ নদী বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁও এবং উত্তর দিনাজপুর জেলার একটি নদী

কাছ

কাছ নদী নদী (ইংরেজি: Kach River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীসংকৈল এবং হরিপুর উপজেলা এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ মহকুমার রায়গঞ্জ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের একটি একটি নদী।[১] নদীটির দৈর্ঘ্য ১২-১৩ কিলোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। আরো পড়ুন

রুশ সাহিত্যের ব্যক্তিত্ব তলস্তয় নিজের লেখায় দেখিয়েছেন রুশ প্রাক-বৈপ্লবিক জীবন

কাউন্ট লিও তলস্তয় বা টলস্টয়কে (ইংরেজি:Lev Nikolayevich Tolstoy; ২৮ আগস্ট ১৮২৮ – ২০ নভেম্বর ১৯১০) রুশ সাহিত্যের অন্যতম ব্যক্তিত্ব হিসাবে বিবেচনা করা হয়। নিজের লেখা গল্প, উপন্যাস ও প্রবন্ধে তলস্তয় দেখিয়েছেন ১৯০৫ সালের প্রথম রুশ প্রাক-বৈপ্লবিক রাশিয়ার জীবন। তিনি তার লেখায় ফুটিয়ে তুলেছেন সেই সময়ের পরস্পরবিরোধী পরিস্থিতি আরো পড়ুন

রায়ডাক নদী বাংলাদেশ, ভুটান ও পশ্চিমবঙ্গের একটি আন্তঃসীমান্ত নদী

রায়ডাক

রায়ডাক নদী বা ওয়াং ছু বা ওং ছু (ইংরেজি: Raidak River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কুড়িগ্রাম জেলার এবং পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহার জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য প্রায় ২৫৩ কিলোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। রায়ডাক নদী মূলত তোরসা নদীর উপনদী তোরসা নদীর বাম তীরে এসে পতিত হয়েছে। আরো পড়ুন

তোরসা নদী বাংলাদেশ, তিব্বত, ভুটান ও পশ্চিমবঙ্গের একটি আন্তঃসীমান্ত নদী

তোরষা নদী

তোরসা নদী বা তোরষা নদী বা তোর্ষা নদী বা তোর্সা নদী বা চুম্বি নদী বা আমোছু নদী (ইংরেজি: Torsa River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কুড়িগ্রাম জেলার এবং পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি ও কোচবিহার জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য প্রায় ২৯৫ কিলোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। আরো পড়ুন

জলঢাকা নদী বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি আন্তঃসীমান্ত নদী

জলঢাকা নদী

জলঢাকা নদী (ইংরেজি: Jaldhaka River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের লালমনিরহাট জেলার এবং পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও কোচবিহার জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য প্রায় ২০৯ কিলোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। জলঢাকা নদী মূলত ধরলা নদীর উপনদী যা ধরলা নদীর বাম তীরে এসে মিলিত হয়েছে। আরো পড়ুন

উত্তরবঙ্গের নদী হচ্ছে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাঞ্চলের নদনদীর বিশাল সমাহার

Rivers of North Bengal

উত্তরবঙ্গের নদী বা উত্তরবাংলার নদী (ইংরেজি: Rivers of North Bengal) হচ্ছে হিমালয়ের ঢালে সৃষ্টি হওয়া বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের প্রায় হাজারখানেক নদনদীর এক বিশাল সমাহার। গঙ্গা নদী মালদহ-মুর্শিদাবাদের সীমান্ত ধরে প্রবাহিত হয়ে পশ্চিমবঙ্গকে দুই ভাগে বিভক্ত করেছে। উত্তরবঙ্গের ছয়টি জেলার ২১,৭৬৩ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে আছে পাঁচটি নদী-অববাহিকা। আরো পড়ুন

বাংলাদেশের পঞ্চগড় জেলার নদনদী এবং জলাশয়ের নামসমূহের তালিকা

মহানন্দা নদী

বাংলাদেশের পঞ্চগড় জেলার নদনদী এবং জলাশয়ের নামসমূহের তালিকা এখানে প্রদান করা হচ্ছে। উল্লেখ করা প্রাসঙ্গিক যে বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের ও বৃহৎ বঙ্গভুমির উত্তরের একটি প্রশাসনিক জেলা পঞ্চগড়। এই জেলার জল প্রবাহের ভেতরে রয়েছে নদী বিল ও অন্যান্য জলাশয়সমূহ। আরো পড়ুন

error: Content is protected !!