উমিয়াম নদী বাংলাদেশ ও মেঘালয়ের একটি আন্তঃসীমান্ত নদী

উমিয়াম নদী বা উমগট নদী (ইংরেজি: Umiam River): উমিয়াম নদী বাংলাদেশ ও মেঘালয়ের একটি আন্তঃসীমান্ত নদী। নদীটি ভারতের মেঘালয় রাজ্যের দক্ষিণ পশ্চিম খাসি জেলা এবং বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার ও ছাতক উপজেলার একটি নদী। নদীটির বাংলাদেশ অংশের দৈর্ঘ্য ৫ কিলোমিটার, গড় প্রশস্ততা ৩৫ মিটার এবং প্রকৃতি সর্পিলাকার। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বা পাউবো কর্তৃক উমিয়াম নদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নদী নং ০৬। বারোমাসি প্রকৃতির এই নদী জোয়ারভাটার প্রভাবে প্রভাবিত না হলেও অত্যন্ত বন্যা প্রবণ। বর্ষা মৌসুমে এই নদীর অববাহিকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে থাকে।

সারি গোয়াইন ও উমিয়াম নদীর প্রবাহ

প্রবাহ: উমিয়াম নদীটি মেঘালয়ের খাসিয়া জৈন্তিয়া পাহাড় হতে উৎপত্তি হয়ে দক্ষিণমুখে প্রবাহিত হয়ে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার নরসিংহপুর ইউনিয়নের উত্তর পূর্ব দিকে দোয়ারাবাজার  ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। পরবর্তী পর্যায়ে এ নদীটি দোয়ারাবাজার ও ছাতক উপজেলার মধ্য দিয়ে সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার দক্ষিণ ইসলামপুর ইউনিয়ন পর্যন্ত প্রবাহিত হয়ে জালিয়াছড়া (ভোলাগঞ্জ) নদীতে পতিত হয়েছে। 

অন্যান্য তথ্য: উমিয়াম নদীটি জোয়ারভাটা প্রভাবিত নয় এবং নদীটি বন্যাপ্রবণ। নদীর অববাহিকায় বাংলাদেশ অংশে কোনো প্রকল্প নেই এবং কোনো ব্যারাজ বা রেগুলেটর নেই। নদীটিতে কোনো বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধ নেই। এই নদীর পাড়ে গুরুত্বপূর্ণ কোনো স্থাপনা নেই।

তথ্যসূত্র:

১. মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক, বাংলাদেশের নদনদী: বর্তমান গতিপ্রকৃতি, কথাপ্রকাশ, ঢাকা, ফেব্রুয়ারি, ২০১৫, পৃষ্ঠা ১৭৩-১৭৪, ISBN 984-70120-0436-4.

Leave a Comment

error: Content is protected !!